ইউটিউব থেকে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যায়

বন্ধুরা, আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা জানবো ইউটিউব থেকে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যায়?

বর্তমান সময়ে ইউটিউব চ্যানেল খুলে অনেকেই টাকা আয় করছেন৷ ঘরে বসে অনলাইনে ইনকাম করার সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং লাভজনক মাধ্যম হলো ইউটিউব৷

তাই আপনিও ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন৷ সঠিকভাবে কাজ করে ইউটিউব চ্যানেল থেকে আপনি চাইলে প্রতি মাসে ভালো পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারবেন৷

আর আপনি যদি জানতে চাচ্ছেন যে, ইউটিউব থেকে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যেতে পারে? (How much money you can earn from YouTube per month) তাহলে এই প্রশ্নের উত্তর আমি আপনাকে অবশ্যই দিবো৷

ইউটিউব থেকে মাসে ইনকাম

How much money earn from YouTube?

বর্তমানে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করার সহজ ও লাভজনক উপায় প্রায় প্রত্যেকেই খুজে থাকে৷ অনলাইন থেকে টাকা আয় করার এমনিতে অনেকে উপায় রয়েছে৷ ইন্টারনেট থেকে টাকা আয় করার এমন অনেক উপায় কাজ রয়েছে যে কাজগুলো করে আমরা ইন্টারনেট থেকে টাকা ইনকাম করতে পারি৷

কিন্তু অনলাইনে ইনকাম করার এমন অনেক মাধ্যমগুলোর মধ্যে ইউটিউব হচ্ছে সবচেয়ে সহজ এবং লাভজনক একটি প্লাটফর্ম৷ কেননা এখান থেকে আপনি ভিডিও কনটেন্ট বানিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন৷

ইউটিউব থেকে কত টাকা আয় করা আয় করা করা যায় এ সম্পর্কে আমি আপনাকে অবশ্যই বলবো৷ তবে এটা জানার আগে আপনাকে ইউটিউব থেকে টাকা আয় কিছু বিষয়ে জানতে হবে৷

যেমন, কিভাবে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা যায়? ইউটিউব আমাদের কিভাবে টাকা দেয়? ইউটিউব কত ভিউতে কত টাকা দেয় এবং সব শেষে ইউটিউব থেকে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যায়?

এসব প্রশ্নের উত্তর আমি আপনাকে এক এক করে নিচে বলে দিবো৷ এসব বিষয়ে জানতে পারলে আপনি ইউটিউব থেকে আয়ের পরিমাণ সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পেয়ে যাবেন৷

কিভাবে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা যায় ?

ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার জন্য,

  • আপনাকে প্রথমে একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলে নিতে হবে৷
  • এরপর আপনার চ্যানেলে নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে হবে৷
  • এরপর আপনার চ্যানেলে মনিটাইজেশন করার মাধ্যমে আপনি টাকা আয় করতে পারবেন৷

ইউটিউব মনিটাইজেশন হলো এমন একটি সিস্টেম যেটার মাধ্যমে আপনার ইউটিউব চ্যানলের ভিডিওগুলোর মধ্যে ইউটিউবের তরফ থেকে কিছু বিজ্ঞাপন (advertisement) দেখানো হবে৷

যে বিজ্ঞাপনগুলো দেখানোর বিনিময়ে আপনি টাকা পাবেন৷ আপনি অবশ্যই ইউটিউবে কোন ভিডিও দেখার সময় ভিডিওর আগে পরে কতগুলো বিজ্ঞাপন দেখতে পান৷ এই বিজ্ঞাপনগুলো দেখানোর ইউটিউব চ্যানেলের মালিক টাকা ইনকাম করে থাকেন৷

ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশনের আবার কতগুলো শর্ত রয়েছে যেগুলো আপনার চ্যানেলের দ্বারা পূরণ হলেই কেবল আপনি ইউটিউব মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন করতে পারবে৷

যেমন, আপনার ইউটিউব চ্যানেলে মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন করার আগে আপনার চ্যানেলে 1000 সাবস্ক্রাইব এবং 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম থাকতে হবে৷

যখনই আপনার চ্যানেল 1000 সাবস্ক্রাইব এবং 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম gain করবে কেবল তখনই আপনার চ্যানেল মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন করতে করবেন৷ এখন আসি ইউটিউব কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের কিভাবে টাকা দেয়?

ইউটিউব আমাদের কিভাবে টাকা দেয়?

ইউটিউবের টাকা দেওয়ার প্রক্রিয়া সম্পর্কে এখন আমি আপনাদের বলবো৷ ইউটিউব কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের কোন পদ্ধতিতে টাকা দিয়ে থাকে?

দেখুন, যখন আপনি আপনার চ্যানেলে মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন করবেন তখন একটা স্টেপে আপনাকে গুগল এডসেন্স (Google AdSense) একাউন্ট খুলতে বলা হবে৷ ইউটিউব সাধারণত গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে আমাদের টাকা দিয়ে থাকে৷

অর্থাৎ আমাদের ইউটিউব চ্যানেল বা ওয়েবসাইটকে মনিটাইজ করার জন্য আমরা গুগলের Advertising program এডসেন্স ব্যবহার করে থাকি এবং আমাদের অয়েবসাইট অথবা ইউটিউব চ্যানেলে যে রেভিনিউ (revinue) generate হয়ে থাকে তার সম্পূর্ণ্টাই গুগল এডসেন্সের দ্বারা হয়ে থাকে৷

অর্থাৎ মনে করুন আপনার ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজ করা রয়েছে৷ এবং আপনার ভিডিওতে বিজ্ঞাপন দেখানো হচ্ছে৷ এই বিজ্ঞাপন গুলো দেখানোর বিনিময়ে আপনাকে কিছু পরিমাণ ডলার দেওয়া হচ্ছে৷

এই রেভিনিউ বন্টনের কাজটি কিন্তু গুগল এডসেন্স করে থাকে৷ তার এক্ষেত্রে বুজতেই পারছেন, ইউটিউব চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দেখানোর মাধ্যমে পাবলিশারদের যে টাকা বা ডলার দেওয়া হয় তা কিন্তু গুগল এডসেন্সের তরফ থেকে দেওয়া হয়ে থাকে৷

এক্ষেত্রে এই টাকা দেওয়ার ক্ষেত্রে ইউটিউবের কোন হাত নেই৷ এখানে ইউটিউব শুধু আমাদের ইউটিউব প্লাটফর্মে ফ্রিতে ভিডিও আপলোড করার সুবিধা দিয়ে থাকে৷

আর এসব ভিডিওতে বিজ্ঞাপণ দেখিয়ে টাকা আয় করার কাজ করে থাকে গুগল এডসেন্স৷ গুগল এডসেন্স সিপিসি, সিটিয়ার, এড ভিউ অনুযায়ি আমাদের revinue generate করে থাকে৷

ইউটিউব কত ভিউতে কত টাকা দেয়?

বন্ধুরা ইউটিউব কত ভিউতে কত টাকা আমাদের পেমেন্ট করে থাকে তা যদি আপনি জানতে চান তাহলে আপনাকে গুগল এডসেন্স একাউন্টের টাকা দেওয়ার পদ্ধতি সম্পর্কে পুরো ধারণা থাকতে হবে৷

আপনাকে Google AdSense account এর CPC, CTR, Page view, Ad view এসবের বিষয়ে আপনাকে জানতে হবে৷

Google AdSense CPC

CPC হলো Cost Per Click অর্থাৎ আপনাকে প্রতিটি এড ভিউতে অথবা প্রতি এড ক্লিকের জন্য কত ডলার দেওয়া হবে তা প্রকাশ করা হয় সিপিসি দিয়ে৷

ধরুন আপনার এডসেন্স একাউন্টে এখন সিপিসি রয়েছে 0.10. তাহলে এখন আপনাকে প্রতিটি বিজ্ঞাপন দেখানোর বিনিময়ে দেওয়া হবে 0.10 ডলার৷ এই সিপিসি এর পরিমাণ সবসময় একই থাকে না৷ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন হতে পারে৷

আপনার ইনকাম কেমন কম বা বেশি হবে তা সাধারনত নির্ভর করে এই সিপিসি এর উপর৷

তাই যদি আপনার চ্যানেলে সিপিসি রেট ভালো পেতে চান তাহলে আপনাকে এমন ক্যাটাগরি বা এমন কনটেন্ট নিয়ে কাজ করতে হবে যেগুলোতে সিপিসি এর পরিমাণ বেশি থাকে৷

দেখানো বিজ্ঞাপনে CPM কত পাচ্ছেন –

আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওগুলোতে প্রতি 1000 ভিউ হলে গুগল এডসেন্স আপনাকে কত টাকা পে করবে তা CPM এর মাধ্যমে বোঝানো হয়ে থাকে৷

মানে CPM বলতে এখানে বোঝানো হচ্ছে আপনার চ্যানেলে প্রতি 1000 ভিউতে আপনি কত টাকা পাচ্ছেন৷ সবগুলো চ্যানেলের ক্ষেত্রে CPM আলাদা হয়ে থাকে৷

একটি চ্যানেলের CPM অনেকগুলো বিষয়ের উপর নির্ভর করা গুগল এডসেন্সের এর দ্বারা দেওয়া হয়ে থাকে৷ যে বিষয়গুলোর উপর CPM নির্ভর করে থাকে সেগুলো হলো:

  • ভিডিওতে দেখানো advertisement গুলো ভিউয়ার্সরা কতবার দেখছেন এবং কতবার ক্লিক করছেন৷
  • ভিউয়ার্সরা বিজ্ঞাপন পুরোটা দেখছেন নাকি skip করে করে দেখছেন৷ ভিডিওতে দেখানো বিজ্ঞাপনগুলোতে CPC কেমন পাচ্ছেন৷
  • যেটার বিষয়ে আমি আগেই আপনাদের বলেছি৷ আপনার ভিউয়ার্স রা কোন দেশ থেকে আপনার ভিডিও দেখছেন৷

সুতরাং বুঝতেই পারছেন যে ইউটিউব থেকে প্রতি 1000 ভিউতে আপনি কত টাকা ইনকাম করতে পারবেন তা কারো পক্ষে নির্দিষ্ট করা বলে দেওয়া সম্ভব নয়৷ সকল ইউটিউব চ্যানেলেই এটি ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে৷ তাই আপনার CPM যতটা ভালো হবে প্রতি 1000 ভিউতে ততটাই ভালো পরিমাণে টাকা আপনি ইনকাম করতে পারবেন৷

আপনার ভিউয়ার্স কোন দেশ থেকে আপনার ভিডিও দেখছেন (Traffic Country)

ইউটিউব থেকে আপনারব ইনকাম তখনেই অনেক বেশি পরিমাণে হবে যখন আপনার চ্যানেলে অন্য দেশ থেকে ট্রাফিক আসবে এবং বাহিরের দেশের ভিউয়ার্স রা আপনার ভিডিও দেখবে৷

যেমন মনে করুন, যদি আপনার ভিউয়ার্স রা এশিয়ার বাহিরে থেকে আসে তাহলে আপনার বিজ্ঞাপনগুলোতে আপনি অনেক বেশি পরিমানে revenue পাবেন৷

আমরা যতটা জানি যে, বাংলাদেশ থেকে আসা ট্রাফিক বা অডিয়েন্স এর জন্য আপনার ইনকাম একটু কম হয় এবং যে বিজ্ঞাপন গুলো দেখানো হয় এগুলোতে CPC অনেক কম থাকে৷ তাই আপনি আপনি যদি বাহিরের দেশের ভিউয়ার্স দের টার্গেট করে ভিডিও বানাতে পারেন তাহলে আপনার চ্যানেলে ইনকাম তুলনামূলক বেশি হবে৷

কিওয়ার্ড এর উপর গুরুত্ব দিন

ইউটিউবের ইনকাম কম বা বেশি অনেকটা কিওয়ার্ড এর উপরও নির্ভর করে থাকে৷ যেমন আপনি যদি এমন কতগুলো কিওয়ার্ড নিয়ে ভিডিও তৈরি করছেন যেগুলোতে CPC অনেক কম পরিমাণে দেওয়া হয়ে থাকে তাহলে আপনার ইনকাম কম হতে পারে৷

আর আপনি যদি এমন কিওয়ার্ড গুলো নিয়ে কাজ করেন যেগুলোর সিপিসি মূল্য বেশি তাহলে আপনার ইনকাম টা অবশ্যই বাড়বে৷

ইউটিউব থেকে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যায় ?

তো বন্ধুরা একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে ইনকাম যে যে বিষয়গুলোর উপর নির্ভর করে থাকে সে বিষয়গুলো সম্পর্কে আমি উপরে ভালোভাবে আলোচনা করেছি৷ এবং আশা করি আপনি সবগুলো ব্যপার ভালোভাবে বুঝে গেছেন৷

যদি আপনি আমার উপরের আলোচনা গুলো বুঝে থাকেন তাহলে আপনি অবশ্যই এ বিষয়ে এক প্রকার ধারণা পেয়ে গেছেন যে ইউটিউব থেকে মাসে কত টাকা আয় করা যেতে পারে৷ এখন আমি আমার দৃষ্টিকোণ থেকে বলছি যে, ইউটিউব থেকে মাসে কত টাকা আয় করা এই প্রশ্ন টির একটি সঠিক উত্তর আপনাকে কেউ দিতে পারবেন না যে, ইউটিউব চ্যানেল থেকে মাসে এই পরিমাণ টাকা আয় করা যেতে পারে৷

ইনকাম কতটা কম বা তা উপরোক্ত বিষয় গুলোর নির্ভর করে এবং তার পাশাপাশি আপনার চ্যানেল যতটা বড় হবে এবং চ্যানেলে যত বেশি পরিমাণে সাবস্ক্রাইবার থাকে এবং যত বেশি ভিউস হবে তত ভালো আপনার ইনকমও হবে৷

তাই আপনি কত টাকা ইউটিউব থেকে আয় করতে পারবেন তা আপনার কাজের উপর সম্পূর্ণটা নির্ভর করবে৷ সুতরাং ভালো কনটেন্ট ক্রিয়েট করুন এবং ইউটিউব প্লাটফর্ম এ সঠিকভাবে কাজকরুন তাহলে আপনি কিছু পরিমাণ টাকা ইউটিউব থেকে আয় করতে পারবেন৷

আর মনে রাখবেন, আপনার চ্যানেল যদি ছোট থাকে, সাবস্ক্রাইবার এর পরিমাণ কম থাকে তাহলে আপনার ইনকাম কম হবে এটা স্বাভাবিক ব্যাপার৷

আর দিন দিন আপনার চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বৃদ্ধি পাবে এবং সেই সাথে আপনার ইনকামও বৃদ্ধি পেতে থাকবে৷

অনেক ইউটিউবার রয়েছেন যারা প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা ইউটিউব থেকে ইনকাম করছেন৷

আমার শেষ কথা

আশা করি “ইউটিউব থেকে মাসে কত টাকা ইনকাম করা যায়” এ বিষয়ে আমার পুরো আর্টিকেলটি আপনি ভালোভাবে বুঝতে পারছেন৷ এ বিষয়ে যদি আপনি আরো বিস্তারিত ভাবে জানতে চান তাহলে আপনি ইউটিউবে সার্চ করে ভিডিও দেখে আরো বিস্তারিত ধারণা পেতে পারেন৷

আর আর্টিকেলটি ভালো লেগে থাকলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন৷ আর এরকম আর্টিকেল পেতে আমাদের ব্লগটি প্রতিদিন ভিজিট করবেন এবং আমাদের ইমেইল সাবস্ক্রিপশন বক্সে আপনার ইমেইল এড্রেস দিয়ে সাবস্ক্রাইব করবেন যাতে করে আমাদের নতুন আপডেট গুলো আপনার ইমেইলের মাধ্যমে পেয়ে যেতে পারেন৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *