ঘরে প্রবেশ করার দোয়া কেন পড়ব ?

আজকের আর্টিকেলে আমরা জানব ঘরে প্রবেশের দোয়া এবং ঘরে প্রবেশ করার দোয়া কেন পড়ব ?

ঘরে প্রবেশের সময় যে দোয়া পড়বেন:

নিজের ঘরে বা কারোর ঘরে প্রবেশের আগে প্রথমে এই দোয়া পড়তে হয়। এরপর ঘরে কেউ থাকুক বা না থাকুক সালাম দিয়ে প্রবেশ করা সুন্নত। দোয়াটি হলো-

اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ خَيْرَ الْمَوْلِجِ وَخَيْرَ الْمَخْرَجِ بِسْمِ اللَّهِ وَلَجْنَا وَبِسْمِ اللَّهِ خَرَجْنَا وَعَلَى اللَّهِ رَبِّنَا تَوَكَّلْنَا

উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকা খাইরাল মাউলিজি, ওয়া খাইরাল মাখরাজি; বিসমিল্লাহি ওয়ালাজনা, ওয়া বিসমিল্লাহি খারাজনা; ওয়া আলাল্লাহি রাব্বিনা তাওয়াক্কালনা। (আবু দাঊদ -৫০৯৬)

অর্থ: হে আল্লাহ! আমি আপনার নিকট আগমন ও প্রস্থানের কল্যাণ চাই। আপনার নামে আমি প্রবেশ করি ও বের হই এবং আমাদের রব আল্লাহর উপর ভরসা করি।

ঘরে প্রবেশ করার সময় কেন আমরা দোয়া পড়বো ?

ঘরে প্রবেশ করার দোয়া কেন পড়ব

আমারা যখন বাইরে যাই তখন সয়তানও আমাদের পিছু নেয়।আর যখন আমরা ঘরে প্রবেশ করি তখন সয়তান আমাদের সাথে ঘরে প্রবেশ করে।

সয়তান আমাদের ঘরের সকল কাজে অংশ নেয় (খাওয়া -দাওয়া,সুয়ে থাকা ইত্যাদি)  এবং আমাদের বিভ্রান্ত করে,খারাপ কাজে পরিচালিত করে।আর আমরা যদি উল্লিখিত দোয়া টি পড়ে ঘরে প্রবেশ করি তাহলে আল্লাহ আমাদের সয়তানের আক্রমণ থেকে রক্ষা করবেন।

ঘর থেকে বের হওয়ার সময় যে দোয়া পড়বেন

রাসুলুল্লাহ (স.) বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় একটি দোয়া পড়তে নির্দেশ ও পরামর্শ দিয়েছেন। দোয়াটি পড়লে বাইরে অবস্থানের সময় আল্লাহর জিম্মাদারিতে থাকা যায়। সব ধরনের বিপদ-আপদ ও অসুবিধা থেকে আল্লাহ তাআলা রক্ষা করেন। দোয়াটি হলো-

بِسْمِ اللهِ تَوَكَّلْتُ عَلَى اللهِ لَا حَوْلَ وَ لَا قُوَّةَ اِلَّا بِاللَّهِ

উচ্চারণ: বিসমিল্লাহি তাওয়াক্কালতু আলাল্লাহ, লা-হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ।(তিরমিজি -৩৪২৬)

অর্থ: আল্লাহর নামে, আল্লাহ তাআলার ওপরই নির্ভর করলাম, আল্লাহ তাআলার সাহায্য ছাড়া বিরত থাকা ও মঙ্গল লাভ করার শক্তি কারো নেই।

ফজিলত :

হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি ঘর থেকে বের হওয়ার সময় দোয়াটি বলে, তখন তার জন্য বলা হয়, তোমার জন্য যথেষ্ট হয়েছে, তুমি রক্ষা পেয়েছ এবং শয়তান তার থেকে দূরে সরে যায়।'( -আবু দাউদ :৫০৯৫)।

 

ঘরে প্রবেশের সুন্নাত সমূহ :

 

. প্রবেশের পূর্বে অনুমতি নেওয়া। এটা জরুরী।

(সূরা নূর- ২৭; বুখারী- ৬২৪১)

. প্রবেশের সময় বিসমিল্লাহ বলা।

(ইবনে মাজাহ- ৩৮৮৭; মুসলিম- ৫৩৮১)

. অতঃপর এই দুআ পড়া-

اللَّهُمَّ إِنِّى أَسْأَلُكَ خَيْرَ الْمَوْلِجِ وَخَيْرَ الْمَخْرَجِ بِسْمِ اللَّهِ وَلَجْنَا وَبِسْمِ اللَّهِ خَرَجْنَا وَعَلَى اللَّهِ رَبِّنَا تَوَكَّلْنَا

(আবূ দাউদ- ৫০৯৮)

৪. ডান পা দিয়ে প্রবেশ করা।

(বুখারী- ১৬৮; মুসনাদে আহমাদ- ২৫৫৪৫)

. প্রবেশের পর ঘরবাসিকে সালাম দেওয়া।

(সূরা নূর- ২৭;আবূ দাউদ- ৫০৯৮)

৬. ঘরে কোন মানুষ না থাকলে এভাবে সালাম দেওয়া-السَّلامُ عَلَيْنَا وَعَلَى عِبَادِ اللَّهِ الصَّالِحِينَ

 

বাজারে প্রবেশের  দোয়াঃ

main keyword

উচ্চারণ :লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াহ্দাহু লা শারীকালাহু লাহুল মুলকু ওয়ালাহুল হামদু ইয়ুহঈ ওয়াইয়ুমীতু ওয়াহুয়া হায়্যুন লা ইয়ামৃতু বিয়াদিহিল খাইরু ওয়া হুওয়া ‘আলা কুল্লি শাই’ইন ক্বাদীর।

অর্থ:একমাত্র আল্লাহ ছাড়া কোনো হক্ক ইলাহ নেই, তাঁর কোনো শরিক নেই, রাজত্ব তাঁরই, প্রশংসা মাত্রই তাঁর। তিনিই জীবন দান করেন এবং তিনিই মারেন। আর তিনি চিরঞ্জীব, মারা যাবেন না। সকল প্রকার কল্যাণ তাঁর হাতে নিহিত। তিনি সব কিছুর উপর ক্ষমতাবান।

 

যানবাহনে উঠার দোয়া :

যানবাহনে উঠার সময় প্রথমে ডান পা রেখে বিস্মিল্লাহ্ পাঠ করবে। তারপর তিনবার “আলহামদুলিল্লাহ্” তিনবার “আল্লাহুআকবার” বলে নিম্নোক্ত দোয়া পাঠ করবে।

সুবহানাল্লাজী ছাখ্খারলানা হাজা ওয়ামা কুন্না লাহু মুক্বরিনীন ওয়া ইন্না ইলা রব্বিনা লামুন ক্বলিবুন।

অত:পর তিনবার “সুবহানাল্লাহ” বলে

সুবহানাকা ইন্নি যালামতু নাফসি ফাগফিরলি ইন্নাহু লা ইয়াগফিরুজ্জুনুবা ইল্লা আনতা।

অবশ্যই পড়ুন-

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *