Skip to content

জন্ম নিবন্ধন যাচাই | জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড 2022

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই –

অনেক দিন থেকে আমি আপনাদের কাছে ভালো‌ কোন‌ আর্টিকেল নিয়ে আসতে পারিনি। অনেক দিন পর আজকে আমি একটি কাজের এবং খুবই প্রয়োজনীয় বিষয় নিয়ে আর্টিকেল লিখতে চলেছি। আজকের এই আর্টিকেলে আমি জন্ম নিবন্ধন যাচাই বা কিভাবে জন্ম নিবন্ধন দেখব এ বিষয়ে আলোচনা করব।

সেই সাথে কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করবেন এসব বিষয়ে প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত নিচে আপনাদের ভালোভাবে দেখিয়ে দিব।

আপনি যদি এটা যাচাই করে দেখতে চান যে, আপনার বা আপনার সন্তানের জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনলাইনে সংরক্ষিত আছে কিনা, কিন্তু আপনি এটা জানেন না যে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার প্রক্রিয়া বা পদ্ধতি কি তাহলে এসব বিষয়ে আমি সবকিছু এক এক করে আপনাদের নিচে ভালো করে দেখিয়ে দিব।

জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সনদ দেখার নিয়ম।

আমাদের প্রত্যেক জনেরই একটি করে জন্ম নিবন্ধন (birth certificate) থাকা অবশ্যই প্রয়োজন। বাংলাদেশের একজন নাগরিক হিসেবে এটি আমাদের অবশ্যই থাকতে হবে এটা আমরা সকলেই জানি।

চলুন আমরা আগে জন্ম নিবন্ধন সনদ কি এ বিষয়ে জেনে নিই।

জন্ম নিবন্ধন কী ? (What is birth registration)

জন্ম নিবন্ধন বলতে বোঝানো হয় একটি শিশুর জন্মের পর প্রথম সরকারি খাতায় প্রথম তার নাম লেখা। জন্মের পর জন্ম নিবন্ধন করার মাধ্যমে একটি শিশুর পরিচয় আইনগতভাবে পুরো বিশ্বকে জানিয়ে দেওয়া হয়ে থাকে।

একটি শিশুর জন্মের পর জন্ম নিবন্ধন করার মাধ্যমে তার জাতীয়তা নিশ্চিত করা হয়। একটি নবজাতকের জন্মগ্রহণের পর এটি একটি প্রথম ধাপ। একটি শিশুর মৌলিক অধিকার গুলোর মধ্যে একটি হলো তার জন্ম নিবন্ধন করা।

একটি জন্ম নিবন্ধন সনদের মধ্যে একজন মানুষের প্রায় সকল পরিচয় তুলে ধরা হয়ে থাকে এ বিষয়ে আমরা অবশ্যই জানি। সেখানে একজনের পিতা মাতার নাম, তার জন্ম তারিখ, সে কোন জায়গায় জন্মগ্রহণ করেছে এবং একটি জন্ম নিবন্ধন নম্বর এ জিনিস গুলোই লিখে দেওয়া থাকে।

কেন জন্ম নিবন্ধন (birth certificate) করতে হয় ? জন্ম নিবন্ধনের গুরুত্ব

আমাদের দেশের নাগরিক হিসবে বেচে থাকতে হলে প্রতি জনেরই জন্ম নিবন্ধন সনদের প্রয়োজন রয়েছে। এমনকি জনম নিবন্ধন অধিকার একজন শিশুর মৌলিক অধিকার হিসেবে বিবেচিত।

একজন নাগরিক হিসেবে যেসব কাজের ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন সনদের দরকার হয়ে থাকে সেগুলোর বিষয়ে নিচে আলোচনা করা হয়েছে।

  • পাসপোর্ট (passport) কপি করার সময় আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদের প্রয়োজন হয়৷
  • যেকোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি (admission) হওয়ার সময় একজন ছাত্রের জন্ম নিবন্ধন সনদের দরকার হয়৷
  • ড্রাইভিং লাইসেন্স (driving licence) করার ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন কপির দরকার হয়ে থাকে।
  • ভোটার তালিকা করতে হলে অবশ্যই জন্ম সনদের প্রোয়োজন রয়েছে৷
  • একটি ব্যাংক একাউন্ট (bank account) খুলতে হলে অবশ্যই জন্ম সনদ কপির প্রোয়োজন রয়েছে৷
  • নাগরিক হিসেবে অবশ্যই আপনার একটি জাতীয় পরিচয়পত্র (NID Card) থাকা লাগবে৷ এক্ষেত্রে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র (National NID Card) পাওয়ার জন্য অবশ্যই জন্ম সনদ থাকা লাগবে৷

এছাড়াও আরো অনেক কাজের ক্ষেত্রে আপনার জন্ম সনদ কপির দরকার হয়ে থাকে৷ সোজা ভাবে বলতে গেলে, এটি প্রত্যেকেরই একটি খুবই প্রয়োজনীয় জিনিস যেটি আমাদের সকল প্রকার গুরুত্বপূর্ণ কাজে দরকার হয়ে থাকে।

তাহলে কোন কাজে জন্ম সনদ ব্যবহার করা হয় সেগুলো আপনারা অবশ্যই জানতে পেরেছেন।

এখন এগুলোর মধ্যে কোন একটি কাজে যদি আপনার জন্ম সনদের দরকার হয় এবং আপনার কাছে যদি সন্ম সনদটি না থাকতে পারে। এমনকি আপনার কাছ থেকে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদের কপিটি হারিয়ে যেতে পারে। তাহলে এখন আপনার করণীয় কি?

এরকম কোন কিছু আপনার সাথে ঘটে থাকলে আপনাকে এ বিষয়ে বর্তমানে তেমন বেশি মাথা ঘামাতে হয় না। কেননা বর্তমান যুগ ইন্টারনেটের যুগ।

আমরা ইন্টারনেট ব্যবহারের মাধ্যমে আজকাল ঘরে বসে থেকেই পৃথিবীর যেকোন জায়গা থেকে যেকোন তথ্য পেয়ে যেতে পারি এবং ব্যবহার করতে পারি।

ইন্টারনেটে প্রচুর হাজার হাজার ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো আমাদের তথ্য পাওয়ার কাজটি অনেক সহজ করে দিয়েছে। আর আমরা ইন্টারনেট ব্যবহার করে আমাদের জন্ম নিবন্ধন তথ্য যাচাই করতে পারি৷

এমনকি আমরা ইন্টারনেটের ওয়েবসাইট নিজের কম্পিউটারে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করে নিতে পারি।

আপনি কম্পিউটার (computer) অথবা মোবাইল ফোন (smartphone) যেকোন ডিভাইস দিয়ে আপনার অথবা অন্য যেকারো জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন।

আর অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন দেখার নিয়ম অনেক সহজ। আমরা ইন্টারনেটের মাধ্যমে কিছু সময়ের মধ্যেই আমাদের birth certificate দেখে নিতে পারি।

কিভাবে অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবেন এ বিষয়ে নিচে এখন আমি আপনাদের বলে দিব।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়ম – (Birth certificate check online)

ইন্টারনেটে নিজের অথবা অন্য যে কারো জন্ম নিবন্ধন সনদ বের করা অনেক সহজ। আপনি অনেক সোজা ভাবে আপনার অথবা অন্যের জন্ম সনদ ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করে বের করে ফেলতে পারবেন।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সনদ এর বিষয়ে সকল প্রকারের কাজ করে থাকে ইন্টারনেটের BDRIS ওয়েবসাইট।

এই ওয়েবসাইটে birth registration, জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন (birth information recorrection) এবং জন্ম তথ্য যাচাই (birth certificate check) করতে পারি।

জন্ম নিবন্ধনের সাথে জড়িত যেকোন কাজ আমরা দুইটি মাধ্যমে করতে করতে পারি। যেমন, আমাদের নিজেদের ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় বা পৌরসভা কার্যালয়ে গিয়ে সরাসরিভাবে তাদের সাথে যোগাযোগ করে সমস্যার সমাধান করতে পারি।

তাছাড়া আপনার যদি জন্ম সনদ কপিটি না থাকে তাহলে আপনি ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে যোগাযোগ করে সেটি সংগ্রহ করে নিতে পারেন।

আর সবচেয়ে সহজ উপায় হলো, আপনি সেসব জায়গায় না গিয়ে ঘরে বসে আপনার জন্ম নিবন্ধন ইন্টারনেটে দেখে নিতে পারেন এবং চাইলে সেটি কম্পিউটারে অথবা স্মার্টফোনে ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক করার নিয়ম এখন নিচে আমি আপনাদের স্টেপ বাই স্টেপ দেখিয়ে দিব।

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করুন – (bdris.gov.bd)

আমি উপরে আপনাদের বলে দিয়েছি computer অথবা smartphone যেকোন ডিভাইস দিয়েই আপনি এ কাজটি করতে পারবেন।

যদি আপনি কম্পিউটার বা পিসি ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আপনি এই সনদের কপিটি প্রিন্টারের মাধ্যমে কপি করে বের করে নিতে পারবেন।

আপনার birth certificate অনলাইনে দেখার জন্য নিচের স্টেপ গুলো follow করুন।

স্টেপ ১:

প্রথমে আপনাকে bdris ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। এজন্য যেকোন একটি ওয়েব ব্রাউজার ওপেন করে নিন। এরপর everify.bdris.gov.bd এখানে ক্লিক করে এই ওয়েবসাইটে যেতে হবে। এরপর আপনি নিচের ছবির মতো একটি ওয়েবপেজ দেখতে পারবেন।

জন্ম তথ্য যাচাই

স্টেপ ২:

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য আপনাকে আগে থেকেই দুইটি তথ্য জেনে রাখতে হবে।

যেমন,

  1. জন্ম নিবন্ধন নম্বর (birth registration number)
  2. জন্ম তারিখ (birth date)

মনে করুন, আপনি আপনার নিজের birth certificate অনলাইনে দেখতে চান তাহলে আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর ও জন্ম তারিখ জানা থাকতে হবে। এছাড়া আর তেমন কিছু করা লাগবে না।

আমি স্টেপ ১ এর মধ্যে যে ওয়েবপেজের কথা বলেছিলাম সেখানে “জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনুসন্ধান” এরকম একটি হেডলাইন দেখতে পারবেন৷ নিচে দুইটি ফাকা box দেখতে পারবেন (উপরের ছবির মতো)।

প্রথমত, আপনাকে আপনার জন্ম নিবন্ধন নম্বর লিখে দিতে হবে৷

দ্বিতীয়ত, নিচের বক্সটিতে আপনার জন্ম তারিখ লিখে দিতে হবে৷

এরপর নিচের দিকে অনুসন্ধান নামে একটি অপশন দেখতে পারবেন৷ “অনুসন্ধান” এ ক্লিক করতে হবে।

স্টেপ ৩:

অনুসন্ধান বা search বাটনে ক্লিক করার পর আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ পেয়ে যাবেন৷ এখানে আপনার অরিজিনাল জন্ম সনদের একটি কপি আপনাকে দেখানো হবে। এটি চাইলে আপনি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি

জন্ম নিবন্ধন তথ্য গুলো নিচের ছবির মতো দেখাবে।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই

তাছাড়া এখান থেকে আপনি চাইলে এটি কম্পিউটারে প্রিন্ট (print) করে নিতে পারবেন৷

জন্ম নিবন্ধন যাচাই করে দেখার পর এটি প্রিন্ট করার জন্য কিবোর্ডের ctrl+p বাটনে ক্লিক করলে প্রিন্ট করে নিতে পারবেন।

এখন আপনি যদি এভাবে জন্ম তারিখ এবং নিবন্ধন নম্বর দেওয়ার পর আপনার সনদটি দেখতে না পারেন তাহলে প্রথমে ভালোভাবে দেখে নিন আপনার লিখা information গুলোতে কোন ভুল রয়েছে কিনা।

যদি ভুল থাকে তাহলে আবার চেষ্টা করে দেখুন, আশা করি পেয়ে যাবেন।

এভাবে আমরা কম্পিউটার এবং মোবাইল দিয়ে নিজেদের জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারি ইন্টারনেটের মাধ্যমে।

আর যদি তারপরও দেখতে না পারেন তাহলে নিচে এ বিষয়ে আপনাদের কাজ আমি বলে দিব।

জন্ম সনদ অনলাইনে না থাকলে করণীয় কী?

যদি উপরের দেখানো স্টেপ follow করে আপনার জন্ম সনদের কপি এই ওয়েবসাইটে না থাকে তাহলে বুঝতে হবে যে, আপনার জন্ম সনদ ইন্টারনেটে যোগ করা হয়নি। যার কারণে এই ওয়েবসাইট জন্ম তথ্য show করাতে পারেনি।

আর এই সমস্যাটি তখনই হতে পারে, যদি আপনার জন্ম সনদ অনেক দিন আগে করা হয়ে থাকে।

নতুন যে জন্ম নিবন্ধন গুলো বর্তমানে করা হয় সেগুলো সব অনলাইনে যোগ করা হয়ে থাকে।

আর আমাদের বর্তমানে একটি ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ থাকা অবশ্যই প্রয়োজন।

আপনার জন্ম সনদ ডিজিটাল তখনই হবে যখন সেটি ইন্টারনেটে থাকবে এবং উপরের নিয়ম অনুসারে অনুসন্ধান করলে পাওয়া যাবে।

তো এখন আপনার কাজ হলো, জন্ম সনদ অনলাইন করে নেওয়া।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম অনেক সহজ। আমি আমার ব্লগে আগেই এ বিষয়ে একটি আর্টিকেল লিখেছি। এই আর্টিকেলে আপনি এটা জেনে নিতে পারবেন যে, কিভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম পূরণ করতে হয়।

এরপরে আপনি একটি নতুন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি পেয়ে যেতে পারবেন।

আমার শেষ কথা,,

How to check birth certificate online in Bengali এ বিষয়ে আমার এই আর্টিকেলটি আশা করি আপনারা ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। কেননা আমি AtoZ ছবি সহ আপনাদের ভালো করে বোঝানোর চেষ্টা করেছি।

যদি ইন্টারনেটে জন্ম নিবন্ধন যাচাই এর বিষয়ে আপনার কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন৷

আর আমার উপরের দেখানো process টির মাধ্যমে তখনই আপনার জন্ম নিবন্ধন কপি অনলাইনে খুজে পাবেন যদি আপনার birth certificate ইন্টারনেটে অন্তর্ভুক্ত থাকে৷

যদি আর্টিকেলটি ভালো লেগে থাকে তাহলে সোশ্যাল মিডিয়ার আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার অবশ্যই করবেন। আর এই ব্লগে আমি আপনাদের প্রয়োজনীয় আর্টিকেল গুলো প্রতিনিয়ত শেয়ার করতে থাকি। তাই নতুন নতুন টেকনোলজি রিলেটেড আর্টিকেল পেতে আমার ব্লগটি ভিজিট করবেন।

আর আপনি জন্ম নিবন্ধন সনদের বিষয়ে যেকোন সমস্যার সমাধান জানতে Jonmo Nibondhon ব্লগে ভিজিট করতে পারেন। এই ব্লগে জন্ম নিবন্ধন সম্পর্কিত প্রত্যেকটি বিষয় নিয়ে আর্টিকেল লিখা রয়েছে।

অবশ্যই পড়ুন –

Leave a Reply

Your email address will not be published.