বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা কোনটি ?

হ্যালো বন্ধুরা, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা কোনটি? এই বিষয়ে হয়তো আমরা অনেকেই জানি এবং অনেকেই জানি না।

আজকের এই আর্টিকেলে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলার নাম কি এবং এর বিষয়ে সম্পুর্ণ তথ্য জেনে নিব।

বাংলাদেশ হলো খুবই ছোট একটি দেশ। আয়তনের দিক থেকে রাঙ্গামাটি বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা। এই জেলার মোট আয়তন 6116.13 বর্গ কিলোমিটার। এই জেলাটি আয়তনের দিক থেকে বাংলাদেশের সকল জেলার মধ্যে সবচেয়ে বড়।

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা কোনটি ?

রাঙ্গামাটি বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা এবং মেহেরপুর বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট জেলা।

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা কোনটি
বাংলাদেশের সবচেয়ে বৃহত্তম জেলা রাঙ্গামাটি।

আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা জানবো রাঙ্গামাটি জেলা সম্পর্কে।

রাঙ্গামাটি জেলার জনসংখ্যা

2011 সালের আদমশুমারির পরিসংখ্যান অনুসারে, রাঙ্গামাটি জেলার মোট জনসংখ্যা 6,20,214 জন।

এই মোট জনসংখ্যার মধ্যে পুরুষ 3,25,823 জন এবং মহিলা 2,94,391 জন। রাঙ্গামাটির জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে প্রায় ১০১ জন।

  • রাঙ্গামাটি ধর্ম বিশ্বাস – 2011

ধর্ম – (%)

মুসলিম 36.82%

হিন্দু 5.30%

বৌদ্ধ 56.06%

খ্রিস্টান এবং অন্যান্য ধর্ম 1.82%

ধর্ম অনুসারে, রাঙ্গামাটি জেলার মোট জনসংখ্যার 36.82% মুসলমান, 5.30% হিন্দু, 56.06% বৌদ্ধ এবং 1.82% খ্রিস্টান ও অন্যান্য ধর্মাবলম্বী।

রাঙামাটি জেলায় চাকমা, মারমা, তঞ্চঙ্গ্যা, বম, চাক, মুরাং, ত্রিপুরা, খেয়াং, খুমি, লুসাই, ম্রো, পাংখোয়া, সাঁওতাল, মণিপুরী ইত্যাদি জাতিগত সংখ্যালঘুদের বসবাস।

রাঙ্গামাটির অবস্থান ও সীমানা – বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা কোনটি ?

রাঙ্গামাটি জেলা বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্ব অংশে 22°27′ থেকে 23°44′ উত্তর অক্ষাংশ এবং 91°56′ থেকে 92°33′ পূর্ব দ্রাঘিমাংশের মধ্যে অবস্থিত।

রাঙ্গামাটি জেলা বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা থেকে প্রায় 308 কিলোমিটার এবং চট্টগ্রাম বিভাগীয় সদর থেকে মাত্র 70 কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

রাঙ্গামাটি জেলার দক্ষিণে বান্দরবান জেলা, পশ্চিমে চট্টগ্রাম জেলা ও খাগড়াছড়ি জেলা, উত্তরে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য এবং পূর্বে ভারতের মিজোরাম রাজ্য এবং মায়ানমারের চিন রাজ্য।

রাঙ্গামাটি বাংলাদেশের একমাত্র জেলা, যেটি ভারত ও মায়ানমার দুই দেশের সাথে আন্তর্জাতিক সীমানা ভাগ করে।

রাঙ্গামাটির প্রতিষ্ঠাকাল

রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি এবং বান্দরবান পার্বত্য অঞ্চল নিয়ে 1860 সালের 20 জুন মাসে পার্বত্য চট্টগ্রাম জেলা সৃষ্টি হয়।

এই জেলা গঠিত হওয়ার আগে এটি কার্পাস মহল নামে পরিচিত ছিল। 1981 সালে পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে বান্দরবান গঠিত হয় এবং 1983 সালে খাগড়াছড়ি একটি পৃথক জেলা হিসাবে সৃষ্টি হলে পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রধান অংশ রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা হিসাবে আবির্ভূত হয়।

চাকমা সার্কেল চীফরা রাঙ্গামাটি থেকে আগত রাজ্য সংগ্রহের পদ্ধতিতে পার্বত্য জেলায় রয়েছেন। মূলত চাকমা রাজা হচ্ছেন আনুষ্ঠানিক চাকমা সার্কেল চীফ।

রাঙ্গামাটির প্রশাসনিক এলাকা

রাঙ্গামাটি জেলায় মোট 10টি উপজেলা, 12টি থানা, 2টি পৌরসভা, 50টি ইউনিয়ন, 159টি মৌজা, 1347টি গ্রাম এবং একটি সংসদীয় আসন গঠিত হয়েছে।

  • রাঙামাটির উপজেলা

ক্রমিক নং – উপজেলা – এলাকা (বর্গ কিমি) – প্রশাসনিক থানা

01. রাঙ্গামাটি সদর – 546.49 – কোতয়ালী

02. কাউখালী – 339.29 – কাউখালী

03. কাপ্তাই-  259 – চন্দ্রঘোনা

04. কাপ্তাই – 259 – কাপ্তাই

05. জুরাছড়ি – 606.05 – জুরাছড়ি

06. নানিয়ারচর – 393.68 – নানিয়ারচর

07. বরকল – ৭৬০.৮৮ – বরকল

08. বাঘাইছড়ি – 1931.28 – বাঘাইছড়ি

09. বাঘাইছড়ি – 1931.28 – সাজেক

10. বিলাইছড়ি – 745.92 – বিলাইছড়ি

11. রাজস্থান – 145.04 – রাজস্থান

12. লংগাডু – 388.49 – লংগাডু

রাঙ্গামাটির শিক্ষা ব্যবস্থা

রাঙ্গামাটি জেলার সাক্ষরতার হার 43.60%। এই জেলায় রয়েছে

  • 1 টি সরকারি মেডিকেল কলেজ।
  • 1 বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।
  • 16 টি কলেজের মধ্যে ২টি সরকারি।
  • 15 টি মাদ্রাসা।
  • 51 টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় যার মধ্যে 6টি সরকারি।
  • 22 টি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
  • 411 টি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

জেলাগুলো বাংলাদেশের প্রশাসনিক ব্যবস্থার একটি গুরুত্বপূর্ণ স্তর। বাংলাদেশের প্রশাসনিক কাঠামোকে গতিশীল করার জন্য দেশের কিছু বৃহৎ এলাকাকে বিভাগ, জেলায় বিভাগ এবং জেলাকে উপজেলায় ভাগ করা হয়েছে।

বিভক্তির সময় পূর্ব পাকিস্তানে জেলার সংখ্যা ছিল 17টি। স্বাধীন বাংলাদেশে জেলার সংখ্যা ছিল 19টি।

পরবর্তীতে সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ 1984 সালে 45টি উপ-জেলাকে জেলায় রূপান্তর করেন। মোট জেলার সংখ্যা ছিল 64টি। জামালপুর স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম জেলা।

আসুন জেনে নিই বাংলাদেশের এই ৬৪টি জেলার মধ্যে আয়তনে সবচেয়ে বড় ১০টি জেলার নাম।

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা কোনটি ? বৃহত্তম ১০ টি জেলার নাম

আয়তনে দশটি বৃহত্তম জেলা হলো:

  • রাঙ্গামাটি:

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দেশ, রাঙ্গামাটির আয়তন 6116 বর্গ কিমি। আপনি যদি জানতে চাচ্ছেন যে, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা কোনটি তাহলে এটি আয়তনের দিক থেকে বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা।

জেলায় 10টি উপজেলা এবং 2টি পৌরসভা রয়েছে। দেশে রিকশাবিহীন একমাত্র শহর রাঙামাটি। দেশের বৃহত্তম হ্রদ কাপ্তাই এই জেলায় অবস্থিত, যার আয়তন ৭২৫ বর্গ কিমি। বাংলাদেশের একমাত্র জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র এই জায় বাঁধ দিয়ে সৃষ্টি হয়েছে।

জেলায় চাকমা, মুরং, মারমাসহ প্রায় ১৪টি উপজাতি বসবাস করে। ভারত ও মায়ানমার উভয়ের সাথেই রাঙ্গামাটির সীমান্ত সংযোগ রয়েছে।

  • চট্টগ্রাম:

বাংলাদেশের প্রবেশদ্বার এবং বাণিজ্যিক রাজধানী, চট্টগ্রামের আয়তন 5283 বর্গ কিমি। এটি দেশের ২য় বৃহত্তম জেলা। পাহাড়, সাগর, উপত্যকা, বনজঙ্গল, জলপ্রপাত সব মিলিয়ে এত প্রাকৃতিক বৈচিত্র্য আর কোনো জেলায় দেখা যায় না।

এটির 15টি উপজেলা এবং 15টি পৌরসভা রয়েছে, এছাড়াও একটি সিটি কর্পোরেশন রয়েছে। চট্টগ্রাম বাংলাদেশের প্রাচীনতম জেলা, যেটি 1666 সালে গঠিত হয়েছিল। ব্রিটিশরা এই জেলার নাম দেয় “চট্টগ্রাম”।

বাংলাদেশের বৃহত্তম সমুদ্র বন্দর এই জেলায় অবস্থিত। দেশের বৈদেশিক বাণিজ্যের ৯০% বন্দর দিয়ে হয়।

  • বান্দরবান:

বান্দরবান দেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে পাহাড়ে ঘেরা একটি জেলা। আয়তন ৪৪৭৯ বর্গ কিমি, যা আয়তনে দেশের তৃতীয় বৃহত্তম জেলা। উপ-জেলার সংখ্যা ৭টি, পৌরসভা রয়েছে ২টি।

এটি বাংলাদেশের সবচেয়ে কম ঘনবসতিপূর্ণ জেলা। জেলায় অসংখ্য দর্শনীয় স্থান রয়েছে। মিয়ানমারের সঙ্গে বান্দরবানের সরাসরি সীমান্ত সংযোগ রয়েছে।

  • খুলনা:

খুলনাকে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের রাজধানী বলা হয়। জেলার আয়তন ৪৩৯৫ বর্গ কিমি। এটি দেশের চতুর্থ বৃহত্তম জেলা এবং তৃতীয় বৃহত্তম শহর।

সুন্দরবনের কোলঘেঁষা জেলা 1882 সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এখানে 9টি উপ-জেলা, 2টি পৌরসভা এবং 1টি সিটি কর্পোরেশন রয়েছে।

  • ময়মনসিংহ:

দেশের মধ্যাঞ্চলে অবস্থিত ময়মনসিংহের আয়তন ৪৩৬৩ বর্গ কিমি। জেলায় ১৩টি উপজেলা, ৯টি পৌরসভা ও ১টি সিটি কর্পোরেশন রয়েছে।

গারো পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত জেলাটি 1787 সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এর গঠনের পর, ময়মনসিংহ জেলাটি তখন ভারতীয় উপমহাদেশের বৃহত্তম জেলা ছিল।

  • নোয়াখালী:

নোয়াখালী বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের একটি সমৃদ্ধ জেলা। আয়তন 4203 বর্গ কিমি। এটি 1821 সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। নোয়াখালী বাংলাদেশের

একমাত্র জেলা যার নিজের নামে একটি শহর নেই। নোয়াখালীর প্রধান শহর মাইজদী। 1948 সালে এর উপজেলা সদর নদীতে বিলীন হয়ে যায়। মাইজদীতে স্থানান্তর করা হয়েছে। এখন এটি জেলার প্রধান শহর। জেলায় ৯টি উপজেলা ও ৮টি পৌরসভা রয়েছে।

  • বাগেরহাট:

বাগেরহাট বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের সুন্দরবনের কোলঘেঁষা জেলা। খুলনা বিভাগের অধীন জেলার আয়তন ৩৯৫৯ বর্গ কিমি। 9টি উপ-জেলা এবং 3টি পৌরসভা রয়েছে।

মংলা বন্দর ও রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র এই জেলায় অবস্থিত। এই এলাকায় প্রচুর নারিকেল ও সুপারি গাছ জন্মে। সুন্দরবনের ১৮৩৪ বর্গ কিলোমিটার এলাকা বাগেরহাটের মধ্যে পড়ে।

  • সাতক্ষীরা:

সাতক্ষীরা দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত। আয়তন 3858 বর্গ কিমি, যার দক্ষিণ অংশে সুন্দরবনের 1445.18 বর্গ কিমি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। জেলায় ৭টি উপজেলা ও ২টি পৌরসভা রয়েছে।

এটি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় 16 ফুট উপরে অবস্থিত। সাতক্ষীরায় আমের ব্যাপক চাষ হয় এবং এখানকার আমই প্রথম বিদেশে রপ্তানি হয়।

  • সুনামগঞ্জ:

সুনামগঞ্জ দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে হাওড় অঞ্চলের অধীনে অবস্থিত। আয়তন 3747 বর্গ কিমি। উপ-জেলার সংখ্যা 11টি, পৌরসভা হলো 4টি।

জেলায় অবস্থিত টাঙ্গুয়ার হাওয়ার সুন্দরবনের পরে ইউনেস্কো কর্তৃক দেশের ২য় রামসার সাইট হিসাবে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

  • সিলেট:

এটি দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের একটি জেলা। জেলার আয়তন ৩৪৫২ বর্গ কিমি, জৈন্তিয়া পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত। উপ-জেলার সংখ্যা 13টি, 4টি পৌরসভা এবং 1টি সিটি কর্পোরেশন রয়েছে।

সিলেটকে বলা হয় দেশের আধ্যাত্মিক রাজধানী, ৩৬০ আউলিয়ার শহর। এই জেলার অনেক বাসিন্দা যুক্তরাজ্যসহ বিশ্ব থেকে এসেছেন। বিভিন্ন দেশে বসবাস, তাই সিলেটকে বিশ্বের ২য় লন্ডন বলা হয়।

আপনার জন্য আরও আর্টিকেলসমূহ:

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা কোনটি?

বর্তমানে রাঙ্গামাটি বাংলাদেশের বৃহত্তম জেলা।

রাঙামাটির আনুমানিক আয়তন কত?

রাঙামাটির আনুমানিক আয়তন প্রায় 6116.13 বর্গকিলোমিটার।

ঢাকা থেকে রাঙ্গামাটির দূরত্ব কত?

রাঙ্গামাটি জেলা বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা থেকে প্রায় 308 কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

তাহলে বন্ধুরা, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জেলা কোনটি? এর উত্তর হলো রাঙ্গামাটি। সেই সাথে বাংলাদেশের বৃহত্তম ১০ টি জেলার নাম এবং সেগুলোর বর্ণনা সম্পর্কে আশা করি আজকের আর্টিকেলে জানতে পেরেছেন।

আর্টিকেলটি ভালো লাগলে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতে ভুলবেন না।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *